1. [email protected] : jashim sarkar : jashim sarkar
  2. [email protected] : mohammad uddin : mohammad uddin
মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন

কম্পিউটার রক্ষণাবেক্ষণ এবং মেরামত (২য় পর্ব) !

আজকে আমরা দেখব কম্পিউটারের সাথে কি কি যন্ত্রপাতির সংযোগ দেয়া হয় এবং কিভাবে। বিভিন্ন যন্ত্রপাতির সমন্বয়ে গঠিত আমাদের কম্পিউটার। আর তাই কম্পিউটারের যন্ত্রপাতিগুলা ঠিকমত সংযোগ দেওয়া একান্ত প্রয়োজন।

কম্পিউটারের সিস্টেম ইউনিট হচ্ছে এমন একটি ধারক যার মধ্যে কম্পিউটারের প্রসেসিং কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ইলেকট্রনিক সার্টিক, প্রসেসর, মেমরি, মাদারবোর্ড, পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট, এজিপি কার্ড, সাউন্ড কার্ড ইত্যাদি সংযুক্ত থাকে।

সিস্টেম ইউনিটের পেছনের দিকে সংযোগের মাধ্যমে বিভিন্ন ইনপুট-আউটপুট যন্ত্রপাতি, যেমন: কী-বোর্ড, মাউস, মনিটর, প্রিন্টার, স্ক্যানার, মডেম, স্পিকার ইত্যাদি সংযুক্ত করা হয়। এসব যন্ত্র সংযোগ দেওয়ার জন্য মাদারবোর্ডের পিছনে পোর্ট থাকে আবার কোন কোন ক্ষেত্রে এক্সপানশন স্লট কার্ড ব্যবহার করেও সংযোগ দেওয়া যেতে পারে। বর্তমানে মনিটর ব্যতিত অন্য প্রায় সকল যন্ত্রের জন্য ইউ.এস.বি পোর্ট ব্যবহার করা হয়। ইউ.এস.বি পোর্ট সিস্টেমের সামনেও সংযুক্ত থাকতে পারে।

কম্পিউটার সিস্টেম গড়ে তোলার জন্য তারের মাধ্যমে বা তারবিহীনভাবে সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে যন্ত্রগুলোর মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক তৈরি করা হয়। প্রতিটি যন্ত্রের সাথে প্রধানত দুটি ক্যাবল সংযুক্ত থাকে:

১. ডেটা চলাচল তার বা ডেটা ক্যাবলের সংযোগ।

২. বিদ্যুৎ সরবারহ তারের বা পাওয়ার ক্যাবলের সংযোগ।

ডেটা ক্যাবলের সংযোগ:

প্রতিটি যন্ত্রের সাথে ডেটা ক্যাবল থাকে। এই ক্যাবল দ্বারা বিভিন্ন পোর্টের মাধ্যমে মনিটর, প্রিন্টার, স্ক্যানার, কী-বোর্ড, মাউস ইত্যাদি যন্ত্রপাতি কম্পিউটারের সাথে যুক্ত হয়। কী-বোর্ড ও মাউসের ক্ষেত্রে শুধু ডেটা ক্যাবল থাকে, আলাদা পাওয়ার ক্যাবলের প্রয়োজন পড়ে না।

বিদ্যুৎ সরবারহের (পাওয়ার সাপ্লাই) ক্যাবলের সংযোগ:

কম্পিউটারে কাজ করার জন্য সিস্টেমকে বৈদ্যুতিক লাইনের সাথে তার বা ক্যাবলের মাধ্যমে সংযুক্ত করতে হয়। বৈদ্যুতিক লাইনের সাথে এই সংযোগ দুইভাবে হতে পারে। সরাসরি লাইনের সাথে সংযোগ অথবা ভোল্টেজ স্ট্যাবিলাইজার কিংবা ইউ.পি.এস এর মাধ্যমে সংযোগ। কম্পিউটারের সি.পি.ইউ বা অন্যান্য যন্ত্রে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার তারকে পাওয়ার কার্ড বলা হয়ে থাকে। এই পাওয়ার কার্ডের মাধ্যমেই বিভিন্ন যন্ত্রে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়। কম্পিউটার যে পাওয়ার কার্ডটি দ্বারা পাওয়ার পায় সেটি তিন-পিনের কানেক্টরযুক্ত পাওয়ার কার্ড। পাওয়ার ক্যাবলের একটি প্রান্ত কম্পিউটারের সাথে যুক্ত থাকে অন্য প্রান্তটি বিদ্যুৎ লাইনের সাথে যুক্ত থাকে। এই কার্ডটি লাগানোর আগে পাওয়ার সাপ্লাইয়ে ভোল্টেজ সুইচের অবস্থান দেখে নিতে হবে। এটা কি ১১০v–এ আছে না ২২০v আছে। দ্বিতীয়টি ( ২২০v) আমাদের দেশের জন্য প্রযোজ্য। মনিটর, স্ক্যানার, প্রিন্টার ইত্যাদি যন্ত্রপাতিকেও আলাদাভাবে বিদ্যুৎ সরবারহ করতে হয়।

বিদ্যুৎ সংযোগের ক্ষেত্রে সতর্কতা:

কম্পিউটার সংযোগের ক্ষেত্রে সকল অংশের ক্যাবল সংযোগ শেষ করার পরই বৈদ্যুতিক সাপ্লাই লাইনের সাথে কম্পিউটারের সংযোগ দিতে হবে। অনুরূপ কম্পিউটার সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার ক্ষেত্রে সর্বপ্রথম বৈদ্যুতিক সাপ্লাই লাইনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হবে। তারপর অন্যান্য সংযোগ বিছিন্ন করা যেতে পারে।

পোর্ট(Port)

কম্পিউটারের পোর্ট হল এক ধরনের পয়েন্ট বা সংযোগ মুখ। কম্পিউটারের সিস্টেম ইউনিটের সাথে কী-বোর্ড,মাউস,স্পিকার,স্ক্যানার ইত্যাদি যন্ত্রের সংযোগ পয়েন্ট থাকে।এ সংযোগ পয়েন্টকে বলা হয় পোর্ট।এ সমস্ত সংযোগ সাধারণত প্লাগযুক্ত ক্যাবলের সাহায্যে সিপিইউ বক্সের পেছনে দেওয়া হয়।যে প্লাগে পিন লাগানো থাকে তাকে বলে মেল প্লাগ(Male Plug)এবং যে প্লাগে ছিদ্র থাকে তাকে বলে ফিমেল প্লাগ(Female Plug)।

কম্পিউটারের পোর্টের মধ্য দিয়ে ডেটা চলাচল এবং সংযোগের প্রকৃতি অনুসারে পোর্টকে বিভিন্নভাবে চিহ্নিত করা হয়। যেমন:

১. প্যারালাল পোর্ট। ৬. মাউস পোর্ট।

২. সিরিয়াল পোর্ট। ৭. নেটওয়ার্কিং পোর্ট।

৩. ইউএসবি পোর্ট। ৮. অডিও পোর্ট।

৪. মনিটর পোর্ট। ৯. ভিডিও পোর্ট।

৫. কী-বোর্ড পোর্ট। ১০. গেম পোর্ট।

আগামী পর্বে আমরা দেখব যে কিভাবে কম্পিউটারের সিস্টেম ইউনিটের সাথে বিভিন্ন অংশের সংযোগ স্থাপন করতে হয় এবং এ ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করব।

আরো পড়ুন