1. [email protected] : jashim sarkar : jashim sarkar
  2. [email protected] : mohammad uddin : mohammad uddin
বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন




দৈনিক মাত্র ৬৩ টাকা জমা রাখলে পাবেন ৭ লক্ষ!

দৈনিক মাত্র ৬৩ টাকা করে আপনাকে জমাতে হবে। আর তাহলেই নির্দিষ্ট সময় পর, পেয়ে যাবেন ৭ লক্ষ টাকা। এমনই এক অসাধারণ পলিসি রয়েছে LIC-র। যার পোশাকি নাম এলআইসি নিউ জীবন আনন্দ (LIC NEW JEEVAN ANAND)। তাই যাঁদের রোজগার খুব একটা বেশি নয়, তাঁরা খুব সহজেই LIC-র এই পলিসিতে টাকা বিনিয়োগ করতে পারেন।

অন্যদিকে এই পলিসির সবথেকে বড় সুবিধা হল, পলিসি ম্যাচিওর করে যাওয়ার পরেও পলিসির কভারেজ শেষ হয় না। অর্থাৎ, ম্যাচিউরিটির সময় পলিসি হোল্ডার একবার টাকা পাবেন, আবার তাঁর মৃত্যুর পর, তাঁর পরিবারের সদস্য বা নমিনি যত টাকার পলিসি করানো থাকবে, সেই সমপরিমাণ অর্থ পাবেন।

LIC-র এই পলিসি করার নুন্যতম বয়স ১৮ বছর এবং সর্বাধিক বয়স ৫০ বছর। অর্থাৎ ১৮ বছর বয়সে যেমন এই পলিসি কেউ করতে পারে, তেমনই ৫০ বছর বয়সে এসেও, এই পলিসি করা যেতে পারে। তবে, নুন্যতম ১ লক্ষ টাকার পলিসি করতে হয়। আর সর্বাধিক কত টাকার পলিসি কোনও গ্রাহক করতে পারেন, তা সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করে গ্রাহকের আয়ের উপর।

উদাহরণস্বরূপ, কেউ ২৬ বছর বয়সে ৪ লক্ষ টাকার জীবন আনন্দ পলিসি করলেন, সেক্ষেত্রে প্রথম বছরে তাঁর বার্ষিক প্রিমিয়াম পড়বে ২৩৮৫৭ টাকা। দ্বিতীয় বছর থেকে প্রিমিয়াম কমে হবে ২৩৩৪৪ টাকা। অর্থাৎ দৈনিক প্রিমিয়াম ৬৪ টাকা করে। কেউ ৪ লক্ষ টাকার পলিসি করে থাকলে, ডেথ সাম অয়াসিওরড থাকবে ৫ লক্ষ টাকা।

অর্থাৎ পলিসির রিস্ক পিরিওড শুরু হওয়ার পর, ২০ বছর মেয়াদের মধ্যে পলিসি হোল্ডারের যদি মৃত্যু হয়, তাহলে তিনি অন্তত ৫ লক্ষ টাকা পাবেন৷ আবার ৪ লক্ষ টাকার জীবন আনন্দ পলিসি করলে ২০ বছর পর, সাড়ে ৭ লক্ষ টাকার কিছু বেশি অর্থ ফেরত পাওয়া যাবে।

টাকা পেয়ে যাওয়ার পর, ভবিষ্যতে যখনই পলিসি হোল্ডারের মৃত্যু হোক না কেন, তাঁর নমিনি বা পরিবারের অন্য সদস্য আরও ৪ লক্ষ টাকা পাবেন। এখানেই শেষ নয়, এই পলিসি করলে, প্রয়োজনে LIC থেকে লোনও নিতে পারবেন আপনি। এছাড়াও ৮০সি ধারায় আয়কর ছাড়ও মিলবে। উল্লেখ্য, পলিসি ম্যাচিউরিটির সময় পাওয়া অর্থও আয়কর মুক্ত আয় হিসেবেই ধরা হবে৷ তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।




আরো পড়ুন













© All rights reserved © 2021 power of people bd
Theme Developed BY Desig Host BD