1. [email protected] : jashim sarkar : jashim sarkar
  2. [email protected] : mohammad uddin : mohammad uddin
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০২:০৭ অপরাহ্ন

বিশ্বের শীর্ষ ধনীর সফলতার চার মন্ত্র

ধনী হতে কে না চায়? তবে ধনী হতে গেলে কয়েকটি কঠিন ধাপ পার হতে হবে। এ কথা বিশ্বের শীর্ষ ধনী আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোসের চেয়ে ভালো কে জানে? সম্প্রতি লাস ভেগাসে অনুষ্ঠিত এক সম্মেলনে ব্যবসায় সফল হওয়ার বিষয়ে তাঁর কাছে পরামর্শ চাওয়া হয়। সেখানে তিনি সফল হওয়ার চারটি মন্ত্রের কথা বলেন। ‘রি: মার্স’ নামের ওই সম্মেলনে জেফ বেজোসের দেওয়া সেই চারটি মন্ত্র জেনে নিন:

ব্যবসায় প্রকৃত আবেগ থাকতে হবে
জেফ বেজোস বলেন, ব্যবসায়ে সফল হতে গেলে আপনার প্রচুর প্রকৃত আবেগ থাকতে হবে। আপনাকে প্রতিযোগিতা করতে হবে প্রকৃত আবেগপ্রবণ ব্যক্তির সঙ্গে। এ জন্য আপনাকে হতে হবে প্রকৃত মিশনারি, মার্সেনারি হলে চলবে না। অর্থাৎ, ব্যবসায় সফল হতে গেলে আপনাকে প্রকৃত উদ্যোক্তা হতে হবে, ভাড়াটে বা বেতনভোগী কর্মী হলে চলবে না। প্রকৃতপক্ষে যাঁরা মিশনারি হয়ে প্রকৃত ব্যবসা করেন, তাঁরাই দিন শেষে বেশি আয় করেন।

সব সময় ঝুঁকি নিতে হবে
বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি হিসেবে ঝুঁকি নেওয়া প্রসঙ্গে জেফ বেজোস বলেন, ঝুঁকি ছাড়া যদি কোনো ব্যবসার ধারণা আপনার থাকে, তবে মনে করবেন, কেউ না কেউ সে ব্যবসা করছে। আপনাকে এমন কিছু করতে হবে, যা ঠিকমতো কাজ করবে না। অন্যদিক থেকে বলতে গেলে অনেকটা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার মতো বিষয় নিয়ে আপনাকে এগোতে হবে। আমরা সব সময় ঝুঁকি নিয়ে কাজ করি। আমাদের ব্যর্থতাগুলো নিয়ে কথা বলি।

ব্যর্থতার ভয় থাকা চলবে না
আমাজনের প্রধান নির্বাহীর মতে, ব্যর্থতায় সফলতার চাবিকাঠি। ব্যর্থ হওয়ার ভয় থাকলে সফল হওয়া কঠিন। নতুন নতুন ধারণা নিয়ে এগোতে হবে। এতে ব্যর্থ হলে ভেঙে পড়া চলবে না। নতুন করে আবার উঠে দাঁড়াতে হবে। নতুন করে কাজ শুরু করতে হবে। ব্যবসায় যত দ্রুত ঘুরে দাঁড়াবেন, ততই সফল হবেন। তবে কোথায় থামতে হবে, সেটাও জানা জরুরি।

কথা শুনতে হবে
সফল যাঁরা হতে চান, তাঁদের মনোযোগ দিয়ে প্রচুর কথা শুনতে হয়। তারপর তাঁদের মনোজগতে ব্যাপক পরিবর্তন আনতে হয়। যাঁরা নিজেদের মধ্যে প্রচুর তথ্য ছাড়াই পরিবর্তন আনতে পারেন, যাঁরা জেগে উঠে প্রচুর তথ্য পুনর্বিশ্লেষণ করে তাঁদের মন পরিবর্তন করতে পারেন, যাঁরা দ্রুত মনোভাব বদলাতে না পারেন, তাঁরা প্রচুর ভুল করে বসেন। যাঁরা সফল হতে চান, তাঁরা মৌলিক গোঁড়ামিকে প্রশ্রয় দেন কম। তথ্যসূত্র: ফাস্ট কোম্পানি/প্রথম আলো

আরো পড়ুন