1. [email protected] : jashim sarkar : jashim sarkar
  2. [email protected] : mohammad uddin : mohammad uddin
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন

আনেকে মনে করে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে এ চান্স পেলেই লাইফ সেটেল হয়ে যায়।আসলেই কি তাই?

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আর প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে আমাদের দেশের মানুষের ভ্রান্ত ধারনা দেখে মাঝে মাঝে খুব অবাক হই। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ই যেন সব কিছু। আমাদের দেশের মানুষ মনে করে পাবলিক এ চান্স পেলেই লাইফ সেটেল হয়ে যায়। কেউ যদি পাবলিক এ বাংলা নিয়ে পরে সেটা প্রাইভেট এর ইঞ্জিনিয়ারিং এর চেয়ে ও ভাল মনে করে।ওই যে, কথায় আছে না, ছেলে সরকারি অফিসের পিয়ন, তাতে কি?

সরকারি চাকরি বলে কথা! আর একজন প্রাইভেট বাংকের ম্যানেজার, তাতে কি?সরকারি চাকরি তো করে না??? তেমনি পাবলিক এ বাংলা নিয়ে পরা ছাত্রকে প্রাইভেট এ ইঞ্জিনিয়ারিং পরা ছাত্রের চেয়ে ভালো মনে করে!!!! কারন ছেলে বাংলা নিয়ে পরে, তাতে কি? পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় বলে কথা!!!!

প্রাইভেট ভার্সিটি তে পরার কথা শুনলে কিছু মানুষ এমন ভাব দেখায় যেন পাবলিক এ পরাটা ঈ সব। কোন সাব্জেক্ট সেটা বড় কথা নয়, বড় কথা হচ্ছে পাবলিক ভার্সিটি!! প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর যেন কোন মান নেই,ভালো বলতে আমরা পাবলিক ভার্সিটি গুলোই বুঝি। আর এ ভাই আপনি খোজ নিয়ে দেখেন বিশ্বের টপ ভার্সিটি গুলো প্রাইভেট! হার্ভার্ড ইউনিভারসিটি এর নাম শুনছেন? এখন আবার সেটা পাবলিক বানাই ফেলেন না!!! পাবলিক এ চান্স পায় সব মেধাবী রা, আর প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় এর পরে শুধু মূর্খ রা, যারা এটা ভাবে তাদের বলছি, প্রাইভেট এ খোজ নিয়ে দেখেন অনেক স্টুডেন্ট আছে যারা ভাল ভাল পাবলিক এ চান্স পেয়েও ভুর্তি না হয়ে প্রাইভেট এ স্বপ্নের সাব্জেক্ট এ ভর্তি হইছে।

পাবলিক ভার্সিটি গুলো যত মানুষের স্বপ্ন পুরন করে তার চেয়ে বেশি স্বপ্ন ভঙ্গ করে। কারণ পাবলিক ভার্সিটি গুলো খুব অল্প মানুষের স্বপ্ন পুরন করতে পারে। তাই যাদের স্বপ্নের সাব্জেক্ট এ পড়ার ইচ্ছে থাকে তারা প্রাইভেট এ ভর্তি হয়। একটা স্টুডেন্ট, যার স্বপ্ন থাকে ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার, তাকে যদি পাবলিক ভার্সিটি তে বোটানি নিয়ে পরতে হয় তাহলে সেটা কখনো স্বপ্ন পুরনের জায়গা হতে পারে না। সেই স্টুডেন্ট টা আর কেউ নয়, আমি নিজে!

আমার স্বপ্ন ছিল ইঞ্জিনিয়ার হওয়া, কিন্তু পাবলিক আমাকে সেটা দেয় নি, তাই বলে যদি আমি খারাপ স্টুডেন্ট হই তবে তাই। তবে যারা খারাপ স্টুডেন্ট ভাবছেন, তাদেরকে একটা কথা বলে রাখি, স্কুল, কলেজ এ সবসময়ঈ টপ এ ছিলাম। আর আমার কাছে স্বপ্নের সাব্জেক্ট টা বড়, ভার্সিটি নয়। এখন হয়তো বলবেন, আমি ভর্তি পরীক্ষায় ভালো করিনি তাই পছন্দের সাব্জেক্ট পাইনি! আপনি যদি এটা ভেবে থাকেন, তাহলে আপনি পুরোপুরি ভুল। কারণ, আমি আমার পরিচিত এক বড় আপুর কথা বলছি, যার স্বপ্ন টা ছিলো আমার মত বড়। আর সেইজন্য দিনরাত পড়াশোনা করে, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ৯ম হয়েও পছন্দের সাব্জেক্ট পায় নি।

এবার কি বলবেন আপনি? তারপরেও পাবলিক এ অপছন্দের সাব্জেক্ট এ পড়া ঈ ভালো? সে প্রাইভেট ইউনিভারসিটি তে পছন্দের সাব্জেক্ট ভর্তি হয়েও খারাপ স্টুডেন্ট ভাবেন শুধু পাবলিক এ না পড়ে প্রাইভেট এ পড়ে বলে? যারা সাব্জেক্ট এর চেয়ে ভার্সিটি বড় করে দেখেন, তাদের বলছি, ভার্সিটি এর নাম দিয়ে আপনি কোথাও দরখাস্ত করতে পারবেন? তখন কিন্তু সাব্জেক্ট টা দিয়ে এ দরখাস্ত করতে হবে! পাবলিক এর স্টুডেন্ট দের চেয়ে প্রাইভেট এর স্টুডেন্ট দের যারা খারাপ মনে করেন তাদের বলছি, আচ্ছা কখনো শুনেছেন যে প্রাইভেট ভার্সিটির ছাত্ররা রাস্তায় নেমে ভাংচুর করেছে? অথচ পাবলিক এর মেধাবী রা সেটা অহরহ করে থাকে!

মানলাম পাবলিক এ চান্স না পেয় অথবা পেয়েও যারা প্রাইভেট এ পড়ে তারা খারাপ। আর যারা যেকোন সাব্জেক্ট নিয়ে পাবলিক এ পড়ে তারা ঈ ভালো। এখন আমার প্রশ্ন হল এইসব মেধাবীরা যখন থার্ড অথবা ফোরথ ইয়ার এ ওঠে তখন তাদের হাতে অস্ত্র আসে কিভাবে? তাহলে আপনি পাবলিক ভার্সিটি গুলোকে মানুষ গড়ার কারিগর বলবেন নাকি সন্ত্রাসী গড়ার? কখনো শুনেছেন যে প্রাইভেট ভার্সিটির কোনো ছাত্র অস্ত্র নিয়ে ক্যাম্পাস এ ত্রাস করছে? আমরা রাস্তায় নেমে ভাংচুর করতে পারিনা, ক্যাম্পাস এ মারামারি করতে পারিনা, কারণ আমাদের লক্ষ টা থাকে স্বপ্ন পুরনের দিকে। আর এই জন্য যদি আমরা খারাপ হই তবে তাই।সরকারি অফিসের পিয়নকে যতদিন প্রাইভেট বাংকের ম্যানেজার এর চেয়ে বড় ভাববেন ততদিন পর‍্যন্ত বাংলাদেশ উন্নয়নশীল ঈ থেকে যাবে, উন্নত হতে পারবে না। সো এইসব লুজ মেন্টালিটির চিন্তা বাদ দিয়ে সাব্জেক্ট কে সম্মান করতে শিখুন , তবেই বাংলাদেশ কে অন্যান্য দেশের মত উন্নত করে তোলা যাবে।

সংগৃহীত

আরো পড়ুন