1. [email protected] : jashim sarkar : jashim sarkar
  2. [email protected] : mohammad uddin : mohammad uddin
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন

রাত ৩ টার আগে বিছানায়ই যান না, যে মারাত্মক সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন আপনি!

তরুণ বয়সে কাজের চাপ, নিজের ইচ্ছা এবং রাত জেগে মুভি দেখা ইন্টারনেট ঘাটার নেশার কারণে অনেকেই রাতের অর্ধেকটা সময় পার করে ঘুমাতে যান। রাত ৩ টার আগে বিছানায় গা এলানো হয় না অনেকেরই। কিন্তু আপনি নিজের কতোটা ক্ষতি করছেন জানেন কি?

‘ঘুম না হওয়া কিংবা ইচ্ছাকৃত না ঘুমানোর কারণে দেহের সার্বিক কার্যকলাপ ব্যহত হয়’, বলে প্রিয়.কমকে জানান জনসেবা ক্লিনিকে কর্মরত ডঃ রানা চৌধুরী। এবং তিনি আরও জানান, ঘুম কম হওয়ার কারণে দেহের উপর যে প্রভাবগুলো দেখা যায় তা বেশ মারাত্মক। ‘আমার কাছে প্রতিদিন এমন অনেক রোগীই আসেন যার মূল সমস্যা হচ্ছে ঘুম নিয়ে এবং প্রতিনিয়ত আমার ফার্মেসী থেকে ঘুমের ঔষধের পাতা কিনতে বহু মানুষ এসে থাকেন’। জানতে চান, না ঘুমিয়ে নিজের কী ধরণের ক্ষতি করছেন আপনি? চলুন জেনে নেয়া যাক বিশেষজ্ঞের ভাষাতেই এবং একই সাথে জেনে নিন গুরুত্বপূর্ণ কিছু পরামর্শ।

১) বিচার বিশ্লেষণ ও চিন্তা করার ক্ষমতা কমায়

রাত হচ্ছে সারাদিনের কর্মব্যস্ত জীবনের পর একটু শান্তির ঘুমের সময়। এই সময়টা যদি আপনি মস্তিষ্ককে বিশ্রাম না দিয়ে অন্য কাজে খাটান তাহলে তার স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা লোপ পেতে থাকবে। আপনি দিনে দিনে নিজের বিচার বিশ্লেষণ করার ক্ষমতা ও কোনো দিকে চিন্তা করার ক্ষমতা হারাতে থাকবেন।

২) আপনার মানসিক স্বাস্থ্য নষ্ট হবে

যারা রাতে ঘুমান না তাদের মধ্যে অনেককেই অতিরিক্ত বিষণ্ণতা এবং হ্যালুসিনেশনের সমস্যায় ভুগতে দেখা যায় বলে প্রিয়.কমকে জানান ডঃ রানা। তিনি বলেন, ‘রাতের ঘুম না হওয়ার কারণে মস্তিস্কে যে চাপ পড়ে তার কারণেই এই সমস্যা দেখা দেয়’।

৩) ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে

স্তন ক্যান্সার এবং প্রস্টেট ক্যান্সারের মতো ক্যান্সারের কোষ দেহে গঠন হয়ে থাকে অতিরিক্ত রাত জাগার কারণেই। এ নিয়ে বর্তমানে অনেক গবেষণাও করা হচ্ছে।

৪) দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে

ঘুম মূলত আমাদের দেহের ক্ষয়ক্ষতি পূরণের একটি পন্থা। আমরা যখন ঘুমাই তখন আমাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য দায়ী লিভিং অরগানিজম কাজ করে। কিন্তু আমরা না ঘুমাতে এই অরগানিজমগুলো কাজ করতে পারে না এবং দিনে দিনে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমতে থাকে।

৫) ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ায়

না ঘুমানোর সাথে ডায়াবেটিসের একপ্রকার যোগাযোগ রয়েছে বলে প্রিয়.কমকে জানান ডঃ রানা। কারণ দীর্ঘদিন এই রাতে না ঘুমানোর কারণে দেহের হরমোনে অনেক পরিবর্তন আসে এবং ইনসুলিন উৎপাদনে ব্যহত হয়। যার কারণেই ডায়াবেটিসে আক্রান্তের ঝুঁকি বাড়ে।

৬) হার্টের সমস্যা বৃদ্ধি করে

আমরা যখন ঘুমাই তখন আমাদের হৃদপিণ্ড এবং রক্তনালী কিছুটা হলেও বিশ্রাম পায় এবং নিজেই নিজের ক্ষতি পুষিয়ে নেয়। কিন্তু ঘুম না হলে প্রতিনিয়ত কার্ডিওভ্যস্কুলার সমস্যা বাড়তে থাকে যার ফলে হার্ট অ্যাটাক, উচ্চ রক্তচাপে এবং স্ট্রোকের মতো সমস্যা দেখা দেয়।

জেনে নিন বিশেষজ্ঞের কিছু গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ

না ঘুমানোর বা ঘুম কম হওয়ার সমস্যার প্রেক্ষিতে ডঃ রানা চৌধুরী বলেন, ‘যদিও তরুণ বয়সে মনে করা হয় না ঘুমিয়েই দিন পার করে সম্ভব এবং ঘুমালেই সময় নষ্ট হওয়া, সত্যিকার অর্থে ঘুমটা আমাদের জন্য অনেক বেশি জরুরী। আমাদের দৈহিক সকল কার্যকলাপ ঘুমের উপরে অনেক বেশি নির্ভরশীল। তাই ঘুমকে অবহেলা না করে নিয়মিত রাতে ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমানো খুবই জরুরী। ঘুম না হওয়ার বা না ঘুমানো খুব অল্প বয়সেই আপনার দেহকে বুড়িয়ে তোলে, কারণ আপনার এই কাজের কারণেই দেহের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গে এতো বেশি চাপ পড়ে যে তা বয়সের আগেই ভেঙে পড়ে। তাই কাজ বাদ দিয়ে হলেও একটু ঘুমিয়ে নিন। ইচ্ছাকৃত ভাবে না ঘুমানোর ব্যাপারটি আপনার হাতেই রয়েছে। আর যদি ঘুমের সমস্যা থেকে থাকে তাহলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত’।

ডঃ রানা চৌধুরী

এম বি বি এস ( মেডিসিন)

আরো পড়ুন