1. [email protected] : jashim sarkar : jashim sarkar
  2. [email protected] : mohammad uddin : mohammad uddin
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন

সৌন্দর্যের পেছনে রয়েছে যে ৭ খাবারের ভূমিকা অপরিসীম !

মানবজীবনে খাবারের ভূমিকাটা অনস্বীকার্য। সুস্থভাবে বেঁচে থাকতে চাইলে সব ধরনের খাবারই খেতে হবে। শুধু কি সুস্থতা? সৌন্দর্যের পেছনেও রয়েছে খাবারের অপরিসীম ভূমিকা। সুন্দর ও আকর্ষণীয় ত্বক পেতে সাহায্য করবে, জেনে নিন এমন সাতটি খাবারের কথা।

১. কালো চকোলেট

প্রতিদিনের সুন্দর ত্বকের জন্য কালো চকোলেট হতে পারে অন্যতম একটি খাবার। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ফ্যাটি এসিড, যা ত্বক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। কালো চকোলেট ত্বকের রুক্ষতা দূর করে এবং সূর্য রশ্মির ক্ষতি থেকে রক্ষা করে।

২. সামুদ্রিক মাছ

চাপ, উদ্বেগ, বিষণ্নতা দূর করতে সামুদ্রিক মাছ হতে পারে চমৎকার খাদ্য। মানব দেহের প্রয়োজনীয় ভিটামিন ডি সামুদ্রিক বিভিন্ন মাছ থেকে পাওয়া সম্ভব। ভিটামিন ডি হৃদপিণ্ড, হাড় ও মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। এটা কোলন ক্যান্সার প্রতিরোধ করে, হাড়ের সমস্যা দূর করে। সামুদ্রিক বিভিন্ন মাছে আছে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা-৩ ও ফ্যাটি এসিড, যা ত্বকের বলিরেখা দূর করে। ত্বককে রাখে আর্দ্র ও কোমল।

৩. নারিকেল তেল

নারিকেল তেল স্যাচুরেটেড ফ্যাট-এর অন্যতম উৎস। লরিক এসিড, ভিটামিন ই সমৃদ্ধ নারিকেল তেল নিয়মিত খেলে ন্যাচারাল অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিভাইরাল হিসেবে কাজ করে। ফলে ত্বক থাকে আর্দ্র, নরম ও বলিরেখা মুক্ত। এটা বডি লোশন হিসেবেও ব্যবহার করা যায়।

৪. গ্রীন টি

গ্রীন টি অ্যামাইনো এসিড, এল-থিনাইন ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভালো একটা উৎস। যা চাপ কমাতে সাহায্য করে, শরীরকে রাখে রিলাক্স। এতে এক প্রকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যা ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে। উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমায়। প্রতিদিন তিন কাপ গ্রীন টি পান করলে ত্বক থাকবে সতেজ।

৫. রঙিন শাক

শাক ও লতাপাতা থেকে পাওয়া যাবে প্রচুর খাদ্য ও পুষ্টিগুন সমৃদ্ধ বিভিন্ন উপাদান। অনেকে এসব খেতে অপছন্দ করলেও এসব থেকে পাওয়া যায় শরীরের প্রয়োজনীয় আয়রন, ভিটামিন ই, ভিটামিন এ, খাদ্যআঁশ, উদ্ভিজ্জ আমিষ এবং ভিটামিন সি। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন সি, ই এবং এ আপনার ত্বকের জন্য বিশেষ উপকারী।

৬. পেঁপে

পেঁপে অসাধারণ পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ একটি ফল। এতে ক্যালরি খুব কম থাকে এবং কোলেস্টেরল নেই। আপনি যদি একই সাথে ওজন কমাতে চান এবং পুষ্টি চান তাহলে আপনার জন্য পেঁপে হতে পারে একটি আদর্শ খাদ্য। এতে কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ কম এবং সহজে হজম হয়। এতে কয়েক রকমের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন সি, ই, বেটা ক্যারোটিন আছে, যা ত্বক সুস্থ রাখার জন্য জরুরি।

৭. গাজর

গাজর শুধু আপনার চোখের জন্য নয়, ত্বকের জন্যও বিশেষ উপকারী। ভিটামিন এ সমৃদ্ধ এই খাবার ত্বকের বাইরের অংশে অতিরিক্ত কোষ জন্মানো প্রতিরোধ করে। গাজর শরীরে মেদ কমাতে, ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে সাহায্য করে। ত্বকের ক্যান্সারের জন্য যেসব কোষ দায়ী গাজর ওইসব কোষ প্রতিরোধ করে। প্রতিদিন অন্তত আধা কাপ গাজর আপনার শরীরকে রাখবে সুস্থ, ত্বককে রাখবে সতেজ।

আরো পড়ুন