1. [email protected] : jashim sarkar : jashim sarkar
  2. [email protected] : mohammad uddin : mohammad uddin
মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন

জীবনে বড় হতে চাইলে কিছু মানুষকে জীবন থেকে বাদ দিন!

কিছু মানুষকে জীবন থেকে বাদ দিয়ে যদি ভাল থাকা যায় তাহলে এই মানুষ গুলোকে চলার পথে রাখার দরকার কি? যারা আপনার লাইফে করা ভাল কিছুর মধ্যেও খারাপ দেখে তাদের সাথে না চলাই ভাল। বলবেন কেন? চলার পথে তো যেকারো প্রয়োজন পড়তেই পারে। তাহলে কেন বাদ দিব…?

জীবনে বড় হওয়ার স্বপ্ন নাই এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে বলে আমার মনে হয় না। কিন্তু সেই স্বপ্নের পেছনে ছুটে সফল না হওয়া মানুষ খুঁজলে তার সংখ্যা কম নয়। কিছু মানুষ আছে যারা অল্পতেই ভেঙে পড়ে। আবার কিছু মানুষ আছে যারা শেষটা দেখতেই ভালবাসে। আর আমি আপনাদের শেষটাই দেখাতে চাই। যেখান থেকে আকাশ আপনার খুব কাছে। আপনি চাইলেই আকাশটা ছুয়ে দেখতে পারবেন।

আপনার খুব কাছের বন্ধুটি যার সাথে আপনি হয়ত বছরের পর বছর পার করছেন। কিন্তুু আপনার সেই বন্ধুটিকে আমি যদি বলি আপনাকে বাদ দিতে হবে আপনি হয়ত আমাকে বকা দিয়েই বসতে পারেন। তার আগে আসুন দেখি তার সাথে আপনার বন্ধুত্বটা রাখা কতটা জরুরী।

আপনার বন্ধু জীবনে আপনার কোন ভাল কাজের প্রশংসা করে নাই। এমনকি সবাই যেখানে প্রশংসা করছে সেখানেও সে আপনার কোন না কোন ত্রুটি উপস্থাপন করে আপনার সফলতার জন্য অন্য কিছুকে ক্রেডিট দিয়েছে। এই মুহুর্ত থেকে বাদ দিন তাকে। কারন এই মানুষটি আপনার জীবনে সবচেয়ে বড় ক্ষতি করছে। নেতিবাচক মানুষিকতার মানুষগুলো কখনও কারো ভাল দেখতে পারে না। এরা কারও প্রশংসাও করতে পারে না। এদের বাপ দাদার সম্পত্তি থেকে আপনাকে কিছুটা দিতে রাজি থাকলেও আপনার প্রশংসা করতে এরা রাজি না। এই শ্রেণীর যত বন্ধু আছে আপনার সবাইকে চিরতরে জীবন থেকে বিদায় করে দিন।

রাত নাই দিন নাই কিছু মানুষ আপনাকে ঝামেলায় রাখে বিনা কারনে। অথবা কারনে অকারনে যারা আপনাকে বিপদে ফেলতেও দ্বিধা বোধকরে না এমন বন্ধু আপনার যত কাছের হোক না কেন বাদ দিন তাদের। এদের জন্য আপনার জীবনে জীবনে চরম মূল্য দিতে হবে। আপনার সফলতার জন্য তৈরী করা ভিত এক নিমেষেই গুড়িয়ে দিতে পারে এই মানুষগুলো। যারা ছায়ার মত আপনার পাশে থেকে আপনার ক্ষতি করবে নিমেষেই।

নেতিবাচক মানুষিকতার মানুষগুলো এড়িয়ে চলুন সবসময়। কারন আপনার যে কোন ভাল সিদ্ধান্তের মোড় এরা ঘুড়িয়ে দিতে পারে। ইতিবাচক বা পজেটিভ দৃষ্টিভঙ্গির মানুষগুলো আপনাকে সব সময় সাহস যোগাবে যে কোন কাজে। এই মানুষগুলোর সাথে সবসময় চলার চেষ্টা করুন। এদের প্রেরণা আপনার জন্য এতটা কাজে দিবে যে আপনার দ্বারা যে কাজটি হয়ত কখনও করা সম্ভব ছিল না সেই কাজটিই আপনি করে ফেলেছেন খুব সহজেই। ইতিবাচক মানুষগুলো আপনার মনোবল দৃঢ় করবে। আপনার অসাধ্য সাধন করতে সাহায্য করবে। তাদের সাথেই চলুন।

দুর্জন বিদ্ব্যান হইলেও পরিতাজ্য। কথাটি জানি না এমন মানুষের সংখ্যা খুবই কম। এই কথাটি আপনাকে মানতেই হবে যদি জীবনে বড় হতে চান। কারন ব্যাক্তি যত বড় বিদ্ব্যান হোক না কেন সে খারাপ হলে সুযোগ পেলেই সে আপনার ক্ষতি করবে। এই বিদ্ব্যান ব্যাক্তিটিই বদলে দিতে পারে আপনার চারিত্রিক অবস্থা থেকে অনেক কিছুই। আপনার চরিত্র এমন ভাবে গড়তে হবে যাতে আপনি সব শ্রেনীর মানুষের ভালবাসার পাত্র হতে পারেন। চরিত্র এতটাই মূল্যবান যা হারালে একটা মানুষের সবটা হারায়।

টাকা পয়সা ক্ষতি হল তো কিছু ক্ষতি হল। স্বাস্থ্য ক্ষতি হল তো আরও বেশী কিছু ক্ষতি হল। আর চরিত্রহীন হলেন তো আপনার জীবনের সবটাই হারালেন। তাই ভাল মানুষের সাথে চলুন ভাল কাজ করার চেষ্টা করুন। সফলতা তো সময়ের ব্যাপার মাত্র। আর জীবনে যদি সত্যি সত্যি ভাল থাকতে চান বড় হতে চান তাহলে এই শ্রেণীর মানুষগুলোকে সারাটা জীবনের জন্য ডিলিট করে দিন। নাহলে এরা আপনাকে শুন্যতে পরিনত করবে। আর আপনার স্বপ্ন ছুটবে কবর স্থানের দিকে। ভাল থাকার জন্য ভাল কিছুর জন্য অন্তত কয়েকটা দিন এ শ্রেণীর মানুষের সাথে চলা বাদ দিয়ে দেখুন না কি হয়?

লেখক:

মোঃ মাসুদুর রহমান মাসুদ

আরো পড়ুন